জেনে নিন বাংলাদেশ থেকে কিভাবে বিদেশে টাকা পাঠাবেন ?

জেনে নিন বাংলাদেশ থেকে কিভাবে বিদেশে টাকা পাঠাবেন ?


Posted on: 2020-06-10 13:43:33 | Posted by: Shafiullah

আমরা ব্যাংকাররা প্রায়ই দেখি, লোকজন ব্যাংক থেকে ব্যাংকে বিদেশে টাকা পাঠানোর জন্য দৌড়-ঝাপ করে।আমাদেরকে বলে, ভাই আমি ঐ দেশে টাকা পাঠাতে চাই।
তখন আমরা তাদের জিজ্ঞাস করি, কেন আপনি বিদেশে টাকা পাঠাতে চান? তখন তারা একেক জন একেক প্রয়োজনের কথা বলে। কেউ বলে তার কাছের কেউ উন্নত  চিকিতসার জন্য ভারত, থাইল্যান্ড বা সিংগাপুর গেছেন। এখন ঐ ব্যাক্তি টাকার সংকটে পড়েছে এবং জরুরি ভিত্তিতে টাকা না পাঠালে সে খুব সমস্যায় পড়ে যাবে অথবা  চিকিতসা শেষ না করেই বাড়ী ফিরতে হবে। আবার কেউ বলে তার ছেলে বা মেয়ে বা ভাই বিদেশে পড়াশুনা করে। এখন তার জন্য জরুরী  ভিত্তিতে টাকা পাঠাতে হবে।
এছারা আরো কিছু লোক আসে যারা কারন বলতে চায় না আবার কেঊ কেউ বলে ব্যাবসার প্রয়োজনে। প্রকৃতপক্ষে সবার জ্ঞাতার্থে বলছি, বাংলাদেশ থেকে বৈধভাবে টাকা  পাঠানোর দুটি উপায় আছে; শিক্ষা এবং চিকিতসা বাবদ। তবে তার জন্য আপনাকে যথাযথ প্রক্রিয়ার মধ্যে যেতে হতে। লেখাপড়া করার জন্য বিদেশ যেতে যাইলে তার বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছ থেকে অনুমোদন নিতে হবে। এই অনুমোদনের প্রক্রিয়াটাকে বলা হয় স্টুডেন্ট ফাইল ওপেন করা। ঠিক একইভাবে, চিকি্তসার জন্য বিদেশ গেলে তাকেও মনে করে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন নিতে হবে এবং ফাইল ওপেন করে যেতে হবে। প্রিয় পাঠক, তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক কিভাবে স্টুডেন্ট  ফাইল ওপেন করতে হয়?

স্টুডেন্ট ফাইল কি?
উচ্চতর শিক্ষার জন্য বিদেশে যে কোন ছাত্র বিদেশী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, পাসপোর্ট ইত্যাদি ব্যাংকের শাখাগুলিতে তার ভর্তি / অফার নিশ্চিতকরণের কিছু নথি জমা দিতে হবে।  ব্যাংক, সমস্ত প্রত্যায়িত ফটোকপি রেখে, সেই বিশেষ ছাত্রের নামে একটি স্টুডেন্ট ফাইল খুলবে। যে ভর্তির অধীনে তার / তার শিক্ষা এবং বাসস্থান সংক্রান্ত সমস্ত  বৈদেশিক মুদ্রা প্রয়োজনীয়তা পূরণ করতে, ব্যাংক তার প্রতিষ্ঠানের (বা তার পক্ষে)পক্ষে ফাইল খোলার ব্যাংক হিসাবে টাকা রাখলে তা বিদেশী মুদ্রায় চলে যায়।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:
♦ভর্তির সমর্থনে বিদেশী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক জারি করা চিঠি
♦মার্কিন ভিত্তিক প্রতিষ্ঠানগুলির জন্য I-20
♦টিউশন ফি এবং বসবাসের খরচ বিবরণ
♦প্রত্যর্পণ (Refund) নীতি
♦বাংলাদেশে সম্পন্ন শিক্ষাগত সার্টিফিকেট
♦মনোনয়নপত্রের(Nominee) বিবরণ
♦মূল বৈধ পাসপোর্ট
♦ছাত্রের ছবি

যোগ্যতা এবং মূল বৈশিষ্ট্য:
♦যেকোন বাংলাদেশী পাসপোর্টধারী শিক্ষার্থী ছাত্র ফাইলের জন্য আবেদন করতে পারেন
♦ব্যাংকের সাথে একটি অ্যাকাউন্ট সম্পর্ক থাকা দরকার

নিম্নে একটি ব্যাংকের ঠিকানা দেয়া হলো, যারা খুব সহজে স্টুডেন্ট ফাইল ওপেন করে থাকেঃ
City Banks Student Center

CBL Student Center: Banani
House 28 (2nd Floor)
Road#11, Block#F, Banani
Dhaka, Bangladesh
PABX: +880(2)9870080, +880(2)9870038, +880(2)9870039 Ext: 114/115
Email: info.ers@thecitybank.com

ট্রাভেলারস কার্ডঃ
এছাড়া যারা বিদেশে বেরাতে কিংবা চিকিতসা করাতে যান, তারা খুব সহজে ট্রাভেলার্স কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন করতে পারেন। বাংলাদেশে বিভিন্ন ব্যাংক এই কার্ড ইস্যু  করে থাকে। তার মধ্যে ব্রাক ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, স্টেড ব্যাংক আব ইন্ডিয়া, স্টেন্ডার্ড চার্টার্ড উল্লেখ্যযোগ্য। আর যাদের ক্রেডিট কার্ড আছে তাদের তো আর কোন  সমস্যাই নেই।তবে যারা ক্রেডিট কার্ড পাওয়ার শর্তপুরন করতে পারেন না, তাদের জন্য ট্রাভে্লার্স কার্ডই সবচেয়ে ভাল।


জনপ্রিয় পণ্য

সাম্প্রতিক পণ্য

Leave a Comment:

Comment as:

alibaba & Import Export expert

সি এন্ড এফ, আমদানি, আলিবাবা নিয়ে যেকোনো সমস্যায় আমাকে ফেসবুকে মেসেজ করুন

এখানে ক্লিক করুন
© 2020 eibbuy. All Rights Reserved.
Developed By Takwasoft